রাষ্ট্রপতির সাথে সাক্ষাতের পর তফসিল

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাতের পর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। রোববার নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ৩৭তম কমিশন সভা শেষে হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে মাহবুব তালুকদার ছাড়া অন্য তিন নির্বাচন কমিশনার উপস্থিত ছিলেন। বিকাল ৩টায় রাজধানীর আগারগাঁও নির্বাচন ভবনে অনুষ্ঠিত ইসির কমিশন সভা। আগামী ২৮ থেকে ৩০ অক্টোবরের মধ্যে যেকোনো একদিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে দেখা করা জন্য সময় চাওয়া হয়েছে কমিশনের পক্ষ থেকে।
সচিব বলেন, রাষ্ট্রপতির সাথে সাক্ষাৎ চেয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে, এখনও তিনি সময় দেননি। মহামান্যের অনুমতি নিয়ে তফসিল ঘোষণা করব। এর পর আরেকটি সভা হবে। সেই সভায় তফসিল নিয়ে আলোচনা হবে।

হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, কমিশন সভায় শুধুমাত্র আচরণ বিধিমালা সংশোধনের বিষয়ে মাত্র দুটি প্রস্তাব অনুমোদন হয়েছে। বর্তমানে যে আচরণ বিধিমালা আছে সেটি ২০০৮ সালের সর্বশেষ প্রণয়ন করা হয়েছিল। দুটি বিষয়ের মধ্যে একটি হলো ৯-এর (ক)-এ জীবন্ত প্রাণী ব্যবহার করা যাবে না।

সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, প্রতীক হিসেবে জীবন্ত ব্যবহার করা যাবে না। ওয়ার্ল্ড লাইভ রিজারভেশন ১৯১২ এবং যারা পরিবেশ বাদি তাদের আবেদনের প্রেক্ষাপটে এবং আইনে প্রতি শ্রদ্ধা রেখে এই ধারা সংযোজন করা হয়েছে। আরেকটি সংযোজন করা হয়েছে পোষ্টারের মধ্যে আগে ছিল কাগজ, কাপড়, ডিজিটাল ডিসপ্লে বা ইলেক্ট্রনিক মাধ্যমসহ যেকোনো প্রচারপত্র। এখানে শুধু মাত্র কাপড় শব্দটি বাদ দেয়া হয়েছে। এই দুটি বিষয় নির্বাচন আচরণ বিধিমালাতে সংযোজন করা হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, ডিজিটাল ডিসপ্লে থাকবে। পর্যবেক্ষক নীতি মালা আরো পরীক্ষা করা হবে বলে সচিব জানান। এক প্রশ্নের জাবাবে সচিব বলেন, অনলাইনে মনোনয়নপত্র দাখিলের বিষয় আরপিও সংশোধন কারার জন্য পাঠানো কয়েছে।

কয়েক দিনের মধ্যেই মন্ত্রিসভার আকার ছোট হয়ে যাবে 
বাসস
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই মন্ত্রীসভার আকার ছোট হয়ে যাবে। তিনি বলেন, ‘১৫-২০ দিন পরেই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হবে। তাই খুব অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই মন্ত্রিসভার আকার ছোট হয়ে যাবে।’
ওবায়দুল কাদের রোববার রাজধানীর কলাবাগানে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল
ইউনির্ভাসিটিতে ‘কার্যকর ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা : দেশের সার্বিক উন্নয়নের অনুঘটক’ শীর্ষক গোল টেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে বিভিন্ন পদক্ষেপের বিষয়ে সরকারের করণীয় নিয়ে মন্তব্য করার সময় সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, আজই পার্লামেন্টের শেষ অধিবেশন শুরু হবে। আর ১৫-২০ দিন পরেই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হবে। নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষণা করবে। এরপরে নির্বাচনী ব্যস্ততা, ক্যাম্পেইন শুরু হবে।

তিনি বলেন, সিডিউল ঘোষণা মানেই ক্যাম্পেইন শুরু। খুব শিগগিরই কয়েক দিনের মধ্যেই মন্ত্রিসভার কাজের ধরন পাল্টে যাবে, মন্ত্রিসভার আকার ছোট হয়ে যাবে। মন্ত্রিসভার আকার ছোট হলে সেখানে আমি থাকব কি না সেটা প্রধানমন্ত্রী ছাড়া কেউ জানেন না। কারা সেই মন্ত্রিসভায় থাকছেন এটা প্রধানমন্ত্রী ছাড়া কেউ বলতে পারবেন না। তবে সরকার এই সরকারই থাকবে। সেই মন্ত্রিসভায় কারা কারা থাকছেন সেটা প্রধানমন্ত্রী সিদ্ধান্ত নেবেন।