‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ শ্লোগানে সিলেটে ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ, রোষানলে সুলতান মনসুর

নিউজ ডেস্ক: নবগঠিত জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শুরু থেকেই ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের মধ্যে একের পর এক মতানৈক্যের গুঞ্জন আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিলেও জোটটির সিলেট সমাবেশকে ঘিরে দেখা দিয়েছে নতুন বিপত্তি। ২৪ অক্টোবর ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগান দিয়ে ঐক্যের শীর্ষ নেতাদের রোষানলে পড়েছেন জাতীয় ঐক্যের আরেক কেন্দ্রীয় নেতা সুলতান মো. মনসুর। এ নিয়ে সৃষ্ট সমালোচনা রাজনৈতিক মহল থেকে ছড়িয়ে পড়েছে সর্বস্তরে।

সূত্র বলছে, সমাবেশে বক্তব্য রাখতে গিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কেন্দ্রীয় নেতা সুলতান মো. মনসুর বলেন, রাজনীতিতে মতবিরোধ – মতপার্থক্য থাকতেই পারে। সেখান থেকে আমাদের সরে আসতে হবে। বক্তব্যের শেষ পর্যায়ে তিনি ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগান দিয়ে তার নির্ধারিত বক্তব্য শেষ করেন।

সুলতান মনসুরের বক্তব্য শেষে দেয়া স্লোগানকে ‘জাতীয় ঐক্য বিরোধী’ স্লোগান বলে আখ্যায়িত করছেন ঐক্যের অনেক নেতাই। তারা বলছেন, সুলতান মনসুর তার বক্তব্যে রাজনৈতিক মতবিরোধ-মতপার্থক্য থেকে সরে আসতে কাদের ইঙ্গিত করছেন তা তার বক্তব্য থেকে স্পষ্ট হয়নি। বরং তার বক্তব্য শেষে ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগানের প্রেক্ষিতে রাজনৈতিক মতবিরোধ-মতপার্থক্য থেকে সরে আসার সুর যেন ঐক্যের নেতাদেরই আঘাত করেছে।

এ প্রসঙ্গে জাতীয় ঐক্যের নেতা মোস্তফা মহসিন মন্টু বলেন, সুলতান মনসুরের স্লোগান নিয়ে জনমনে সংশয় তৈরি হওয়ার যথেষ্ট কারণ আছে। কেননা, আমরা ঐক্য করছি বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার বাইরে একটি শক্তিকে প্রতিষ্ঠা করতে। অথচ সেই শক্তি গঠনের প্রথম ধাপে, প্রথম সমাবেশে জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু স্লোগান দিয়ে তিনি একটি বিতর্কের সৃষ্টি করলেন। এটা অন্তত জাতীয় ঐক্যের সঙ্গে থাকা সাধারণ মানুষ মেনে নেবে না। বরং তাদের কাছে জাতীয় ঐক্যকে পাতানো খেলা মনে হতে পারে। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক এবং চিন্তার।

এদিকে ঐক্যের অনেক নেতাই বলছেন, যেহেতু ঐক্যের সব নেতাই ঐক্যের গোপনীয়তা রক্ষার পক্ষে, সেহেতু আওয়ামী লীগের সাবেক এই নেতা ঐক্যফ্রন্টে কার প্রতিনিধিত্ব করছেন সেটিও ভেবে দেখার অবকাশ রয়েছে।