বুড়িগঙ্গা তীরের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত

সরকার দেশের নদ-নদী রক্ষায় বিশেষ ভূমিকা পালন করছে। রাজধানীর পার্শ্ববর্তী নদীগুলোর তীরভূমির অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) চতুর্থ পর্বের চতুর্থ পর্যায়ের দ্বিতীয় দিনের অভিযানকালে নারায়ণগঞ্জের আলীগঞ্জ এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীর তীর থেকে আরও ৫৪টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে সংস্থাটি।

মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত নারায়গঞ্জের আলীগঞ্জ খেলার মাঠ থেকে ফতুল্লা মেঘনা পেট্রলিয়াম লিমিটেড পর্যন্ত বুড়িগঙ্গা নদীর উত্তর পাড়ে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। এটি ছিল চলমান উচ্ছেদ অভিযানের ৪৯তম দিন। বিআইডব্লিউটিএ’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযানকালে এসব এলাকা থেকে নয়টি পাকা ও ১৯টি আধাপাকা ভবন, দুইটি গুদাম ঘর এবং ২৪টি টিনের ঘর মিলিয়ে মোট ৫৪টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। উচ্ছেদকৃত পাকা স্থাপনার মধ্যে ছিল দুটি দোতলা এবং সাতটি একতলা ভবন। এ সময় দুই একর তীরভূমি অবমুক্ত করা হয়।

উচ্ছেদ অভিযানকালে এই অভিযানের তত্ত্বাবধানে থাকা বিআইডব্লিউটিএ’র ঢাকা নদী বন্দরের যুগ্ম পরিচালক এ কে এম আরিফ উদ্দিন এবং সংস্থার ঊর্ধ্বতন কমকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অভিযানের চতুর্থ পর্বের চতুর্থ পর্যায়ের তৃতীয় দিনে বুধবার সকাল ৯টা থেকে ফতুল্লা মেঘনা পেট্রলিয়াম থেকে পঞ্চপটি-ধর্মগঞ্জ অভিমুখে বুড়িগঙ্গা নদীর উত্তর পাড়ে উচ্ছেদ কার্যক্রম চালানো হবে।