ইডেনের চেয়েও বড়, বাংলাদেশে তৈরি হচ্ছে এশিয়ার সবচেয়ে ব্যয়বহুল স্টেডিয়াম

সবচেয়ে ব্যয়বহুল স্টেডিয়াম

 

 

 

 

 

ঠিক যেন বিশালাকার একটা নৌকা। যেন হাজার হাজার যাত্রী নিয়ে এখনই রওনা দেবে। তার পেটের মধ্যে রয়েছে আস্ত একটা সবুজ ক্রিকেট মাঠ। নৌকায় চড়ে সেই মাঠে হবে দুই দেশের ব্যাট-যুদ্ধ। তবে এ নৌকা জলে ভাসবে না। শহরের মাঝে এক জায়গাতেই স্থির হয়ে দাঁড়িয়ে থাকবে।

stadium
এই স্টেডিয়ামের ধারণ ক্ষমতা হবে ৫০ হাজারেরও বেশি। ধাপে ধাপে তা বাড়িয়ে এক লাখ পর্যন্ত করা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।
৮১৪stadium
এ ছাড়াও এই স্টেডিয়াম বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সদর দফতর হবে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ঢাকা ডায়নামাইটের ঘরের মাঠ হবে। এতদিন এই দলের ঘরের মাঠ ছিল শের-ই-বাংলা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম।
৯১৪stadium
এখনও পর্যন্ত বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় স্টেডিয়াম হল বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম। যার দর্শক ধারণ ক্ষমতা ৩৬ হাজার।
১০১৪stadium
বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়াম অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন ক্রিকেট স্টে়ডিয়াম। এই স্টে়ডিয়ামে এক লাখেরও বেশি দর্শক খেলা দেখতে পারেন। আর মাঠের আকার দৈর্ঘ্যে ১৭১ মিটার এবং প্রস্থে ১৪৬ মিটার।
১১১৪stadium
মেলবোর্নের পরেই স্থান কলকাতার ইডেন গার্ডেন্স স্টেডিয়ামের। এর ধারণ ক্ষমতা ৬৮ হাজার। ইডেন গার্ডেন্স বিশ্বের দ্বিতীয় এবং এখনও পর্যন্ত ভারতের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়াম।
১২১৪stadium
তবে খুব শ্রীঘ্রই মেলবোর্ন এবং ইডেন গার্ডেন্সকে এক সারি নীচে নামিয়ে দিতে চলেছে গুজরাতের আমদাবাদে তৈরি হওয়া সর্দার পটেল স্টেডিয়াম।
১৩১৪stadium
গুজরাতের মোতেরায় তৈরি হওয়ার জন্য একে মোতেরা স্টেডিয়ামও বলা হয়ে থাকে। এই স্টেডিয়াম ১৯৮২ সাল থেকেই রয়েছে। আগে ৫৪ হাজার লোক ধরত এই স্টেডিয়ামে। ২০১৭ সাল থেকে এর সম্প্রসারণ এবং আধুনিকরণের কাজ শুরু হয়েছে। ২০২০ সালের মধ্যেই তা শেষ হওযার কথা।
১৪১৪stadium
মোতেরা স্টেডিয়ামের লোক ধারণ ক্ষমতা কত হবে? যেখানে মেলবোর্ন স্টেডিয়ামে এক লক্ষের কিছু বেশি লোক ধরে, সেখানে মোতেরা স্টেডিয়ামে একসঙ্গে এক লক্ষ ১০ হাজার মানুষ বসে খেলা দেখতে পারবেন। সম্প্রসারণের জন্য আনুমানিক খরচ হবে ৭০০ কোটি টাকা।