আগামী সপ্তাহেই উন্মুক্ত হচ্ছে ‘সুরক্ষা’ অ্যাপ

 

আগামী সপ্তাহের শুরুতেই উন্মুক্ত করে দেয়া হবে সরকারের পক্ষ থেকে প্রদত্ত করোনার ভ্যাকসিন প্রাপ্তির অনলাইন নিবন্ধন প্লাটফর্ম ‘সুরক্ষা.গভ.বিডি’ ওয়েবসাইট। আইসিটি বিভাগের সফটওয়্যার অ্যাসুরেন্স ল্যাবে এখন অ্যাপটির মান যাচাই চলছে।

সোমবার (১৮ জানুয়ারি) হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে কোভিড-১৯ এর স্বাস্থ্য বুলেটিন-২০২০-এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এ তথ্য জানান তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

মহামারি মোকাবেলায় বুলেটিনটি আগামী প্রজন্মের জন্য সংরক্ষণ করার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি বলেন, বুলেটিনটি সামনের হাজার মাইল পাড়ি দেয়ার একটি পদক্ষেপ মাত্র। করোনার পর একটি ল্যাব বেড়ে ২০০টি ল্যাব এবং ১০০টি পরীক্ষার বদলে ১৫ হাজার ১৫-২০ হাজার পরীক্ষা হচ্ছে।

টেলিমেডিসিনের ভূমিকা তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, ঘরে থেকেই ৮০ হাজার রোগী ৪ হাজার ডাক্তারের কাছ থেকে সেবা নিয়েছেন। এর জন্য আইসিটিমন্ত্রীকে আমি আবারো আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

এসময় করোনাকালে টেলিমেডিসিন সেবার গুরুত্ব তুলে ধরে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, কোভিড-১৯ মোকাবিলায় টেলিমেডিসিন সেবার জন্য কল এসেছে ২ কোটি ৩৬ লাখ। এ সেবা প্রদানে ৪ হাজার ডাক্তার যুক্ত রয়েছেন। তারা বিনা পয়সায় এই টেলিমেডিসিন সেবা দিয়েছেন। ৩৩৩ সহ সরকারের টেলিমেডিসিন সেবায় এসব কল এসেছে। সবমিলিয়ে ৮০ শতাংশের বেশি করোনা রোগী টেলিমেডিসিন সেবা নিয়েছেন।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, ‘৬৬ দিন ন্যাশনাল লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যখন অন্যান্য দেশের মাথা পিছু আয় কমে গেছে, সেখানে ২০২০ সালে এসে আমাদের মাথাপিছু আয় দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ৫৯ ডলার। আমাদের অফিস বন্ধ ছিল ৬৬ দিন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এখনও বন্ধ আছে। কিন্তু আমাদের দাফতরিক কাজ এক মুহূর্তের জন্য বন্ধ হয়নি।’

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিলের (বিএমআরসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী, বিএমএ সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) সভাপতি ডা. মোহাম্মাদ ইকবাল আর্সালান, স্বাস্থ্য সচিব আব্দুল মান্নান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।