মাদরাসা শিক্ষকদের সরকারি বেতন চালু করেন বঙ্গবন্ধু

বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীন কেন্দ্রীয় কমিটির মহাসচিব মাওলানা শাব্বির আহমদ মোমতাজী বলেছেন, এদেশে মাদরাসা শিক্ষার প্রসার, বিকাশ এবং শক্ত ভিত্তির ওপর দাঁড় করিয়ে ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ১৯৭৩ সালে যখন তৎকালীন সরকারের ওপর মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থা বন্ধ করে ধর্ম নিরপেক্ষ শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করার চাপ দেয়া হয়েছিল, তখন সেই চাপ দৃঢ়ভাবে মোকাবেলা করেন তিনি। শুধু তাই নয়, তিনি মাদরাসা শিক্ষক সমাবেশে যোগ দিয়ে এদেশে মাদরাসা শিক্ষা চালু রাখার বজ্রকন্ঠ ঘোষণা দেন। তিনি মাদরাসা শিক্ষকদের সরকারি বেতন চালু রাখারও ব্যবস্থা করেন। মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড গঠন করে তার চেয়ারম্যান করেন মাও. আব্দুর রশীদ তর্ক বাগীশকে।

তিনি বলেন, ইসলামিক ফাউন্ডেশন গঠন করে সহজবোধ্য বাংলায় কোরআন হাদিস ফেকাহর কেতাব প্রকাশ করার মূল কারিগর তিনিই। গতকাল দুপুরে বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীন বগুড়া জেলা শাখার উদ্যোগে ঠনঠনিয়া নূরুন আলা নূর ফাযিল মাদরাসায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জন্মশতার্ষিকী উপলক্ষ্যে “ইসলামের সেবায় বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের অবদান ও আজকের প্রেক্ষাপট” র্শীষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

সংগঠনের জেলা সভাপতি প্রিন্সিপাল আব্দুল হাই বারীর সভাপতিত্বে তিনি বলেন, অতীতের মতো এখনও বিভিন্নভাবে বাংলাদেশের একক বৃহত্তম অরাজনেতিক সংগঠন বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীন নিয়ে ষড়যন্ত্র হচ্ছে। তবে তা’ সম্ভব হবেনা। কারণ এই সংগঠনের জন্ম থেকে অবধি পীর মাশায়েখদের ছোহবত সংশ্লিষ্টতা ও দোয়ার ফায়েজ আছে।

মহাস্থান শাহসুলতান বলখী (রহ.) আলিম মাদরাসার প্রিন্সিপাল ও শিবগঞ্জ উপজেলার সভাপতি আলহাজ্ব আবু বকর সিদ্দিকের পরিচালনা উক্ত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব প্রিন্সিপাল মাওলাানা মো. মোকাদ্দেসুল ইসলাম, সরকারি মোস্তফাবিয়া আলিয়া মাদরাসা আলিয়া মাদরাসার ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল আলহাজ্জ মো. মোখলেসুর রহমান, সিরাজগঞ্জ জেলা জমিয়াতুল মোদার্রেছীন সভাপতি প্রিন্সিপাল মাওলানা মো. আতিকুর রহমান, বগুড়া জেলা শিক্ষা অফিসার মো. হজরত আলী, বগুড়া জমিয়াতুল মোদার্রেছীন বগুড়া জেলার সহ সভাপতি প্রিন্সিপাল মাওলানা হাফিজুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক মাও. রেজাউল বারী বাবলুসহ প্রিন্সিপাল ড.আব্দুল মান্নান, প্রিন্সিপাল হাফিজুর রহমান, প্রিন্সিপাল মাও. ইসমাইল হোসেন, প্রিন্সিপাল মাও. হারুনুর রশীদ, প্রিন্সিপাল আ ন ম ইযাহিয়া, মেসবাহুল আলম, এবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষকদের পক্ষে মোৎ হায়দার আলী প্রমুখ।

সভার শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য দিয়ে প্রধান ও বিশেষ অতিথিদের স্বাগত জানান জমিয়াতুল মোদার্রেছীন বগুড়া জেলা শাখার সম্পাদক প্রিন্সিপাল মাও. রাগেব হাসান ওসমানি। অনুষ্ঠানের সকল বক্তা তাদের বক্তব্যে জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের সাবেক সভাপতি, সাবেক ধর্মমন্ত্রী ও দৈনিক ইনকিলাবের প্রতিষ্ঠাতা মাও. এম এ মান্নান (রহ.) এর প্রতি শ্রদ্ধা প্রকাশ করে বলেন, তাঁর নিরলস অবদানের কথা ভোলার নয়।

বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধুর ধারাববাহিকতায় তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মাদরাসা শিক্ষায় অভ‚তর্পূব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। তিনি আলাদা মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর, ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় এবং মাদরাসা শিক্ষকদের স্কেল বৈষম্য দূর করে মাদরাসা শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়েছেন ও অধিকতর গতিশীল করেছেন। অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি জেলার বিভিন্ন উপজেলার দারিদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে শীতবস্ত্র হিসেবে কম্বল বিতরণ করেন। সবশেষে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনায় মোনাজাত করে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।
জয়নাল আবেদীন (রহ.)’র মাজার জিয়ারত : বগুড়ার ঐতিহ্যবাহী ঠনঠনিয়া খানকার মরহুম পীর জয়নাল আবেদীন (রহ.)-এর মাজার জিয়ারত করলেন বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব প্রিন্সিপাল মাওলানা শাব্বির আহমেদ মোমতাজি। তিনি গতকাল শুক্রবার বগুড়ায় জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের নির্ধারিত কর্মসূচি শেষে বিকেলে দরবার শরীফে আসলে তাঁকে স্বাগত জানান, মরহুম পীরের দুই নাতি পীরজাদা মাওলানা শাব্বির হাসান ওসমানি ও পীরজাদা মাওলানা রাগেব হাসান ওসমানি।