স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে সহযোগিতার সম্পর্ক জোরদারে ঢাকা-দিল্লি

 

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে সহযোগিতার সম্পর্ক জোরদার করতে একমত হয়েছে ঢাকা-দিল্লি। শুক্রবার ভারতের রাজধানীতে দিল্লিতে দুই দেশের পররাষ্ট্রসচিব পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শেষে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বৈঠকে বাংলাদেশের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন এবং ভারতের নেতৃত্ব দেন দেশটির পররাষ্ট্রসচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা।

গত বৃহস্পতিবার চার দিনের সরকারি সফরে ভারতে যান পররাষ্ট্রসচিব। আগামী ২৬ মার্চ স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফর করার কথা রয়েছে। পররাষ্ট্রসচিবের এই সফরে মোদিকে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানানো হবে। এছাড়া মোদির সফরসূচি ও সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) এই সফরে চূড়ান্ত হওয়ার কথা রয়েছে। এর আগে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীতে মোদির বাংলাদেশ সফরের কথা ছিল। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে সেই সফর বাতিল হয়। সবশেষ গত ১৭ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক করেন নরেন্দ্র মোদি।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী, দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে সহযোগিতার সম্পর্ক জোরদারে উভয় পক্ষ সম্মত হয়েছে। বৈঠকে আগামী মার্চে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এ ছাড়া দুই দেশের মধ্যে কভিড ভ্যাকসিন, বাণিজ্য, কানেকটিভিটি, বিদ্যুৎ-জ্বালানি, পানি বণ্টন ইত্যাদি বিষয়ে সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। উভয় পক্ষ আগামী মার্চে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর ঢাকা সফরের আগে স্বরাষ্ট্র, বাণিজ্য এবং পানিসম্পদ সচিবদের বৈঠকের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।