বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় বন্ধ পাটকল চালুর সম্মতি প্রধানমন্ত্রীর

লিজের মাধ্যমে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় বন্ধ ঘোষিত পাটকলগুলো চালুর নীতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্মতি দিয়েছেন। গতকাল রবিবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এ কথা জানানো হয়েছে।

কমিটির সভাপতি মুজিবুল হক চুন্নুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান, শাজাহান খান, নজরুল ইসলাম চৌধুরী ও শামসুন নাহার অংশ নেন।
সংসদীয় কমিটি আগের বৈঠকে বন্ধ পাটকলগুলো পুনরায় চালুর সুপারিশ করেছিল। ঐ সুপারিশের অগ্রগতি সম্পর্কে গতকাল সংসদীয় কমিটিকে মন্ত্রণালয় জানায়, বাংলাদেশ পাটকল করপোরেশনের (বিজেএমসি) নিয়ন্ত্রণাধীন বন্ধ ঘোষিত পাটকলগুলোর উত্পাদন কার্যক্রম বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পুনরায় চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। মিল চালুর জন্য লিজ বা ইজারা দেওয়ার ক্ষেত্রে অনুসরণীয় মৌলনীতি ও কর্মপরিকল্পনায় প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিয়েছেন। এর কার্যক্রম বর্তমানে অব্যাহত রয়েছে। মিলগুলো চালু হলে অবসায়নকৃত শ্রমিকদের মধ্যে অভিজ্ঞ ও দক্ষ শ্রমিকেরা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কাজ করার সুযোগ পাবেন বলেও সংসদীয় কমিটিকে জানায় মন্ত্রণালয়।

সংসদ সচিবালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বৈঠকে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর আধুনিকায়ন ও শক্তিশালীকরণ এবং ১৩টি জেলার কার্যালয় স্থাপন প্রকল্পের মধ্যে ছয়টি জেলার কাজ চলমান থাকায় কমিটি সন্তোষ প্রকাশ করে। বাকি সাতটি জেলায় কার্যালয় স্থাপনের বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে কমিটি মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করেছে। অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরির জন্য কমিটির সদস্য শাজাহান খানের অফিস কাজ করছে—কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের দুই কর্মকর্তা সম্প্রতি মন্ত্রণালয়ে এমন একটি প্রতিবেদন দাখিল করেছে। গতকালের বৈঠকে শাজাহান খান এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। কমিটির সদস্য শাসমুন নাহারকে উক্ত প্রতিবেদন পুনঃতদন্ত করতে সংসদীয় কমিটি দায়িত্ব দিয়েছে।