১৬শ’ নারী ও শিশুকে অনুদান দেয়ার সিদ্ধান্ত

এক হাজার ৬৫৮ জন নারী ও শিশুর মাঝে ৯১ লাখ টাকা অনুদান দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়। চিকিৎসা সেবা, শিক্ষা সহায়তা ও সাধারণ আর্থিক অনুদান হিসেবে নির্যাতিত, দুঃস্থ নারী ও শিশুদের মাঝে এই অনুদান বিতরণ করা হবে।

 

গতকাল সোমবার সচিবালয়ে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরার সভাপতিত্বে নির্যাতিত, দুঃস্থ মহিলা ও শিশু কল্যাণ তহবিলের বোর্ড অব ট্রাস্টির সভায় এই অনুদান প্রদানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় নারীর উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নে যেমন কাজ করছে, তেমনি দুঃস্থ নারী ও শিশুদের কল্যাণেও কাজ করে যাচ্ছে। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় ভিজিডি, মাতৃত্বকালীন ভাতা ও কর্মজীবী ল্যাক্টেটিং মা ভাতা হিসেবে ২১ লাখ নারী ও শিশুর খাদ্য ও পুষ্টি নিশ্চিত করছে।

 

মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও সংসদ সদস্যদের সুপারিশ, ব্যক্তিগতভাবে দাখিল করা, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় এবং উপজেলা ও জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে অনুদান প্রাপ্তির জন্য চলতি অর্থবছরে মোট ২ হাজার ১৪৩টি আবেদনপত্র জমা পড়ে। এর মধ্য থেকে যাচাই করে ১ হাজার ৬৫৮ জনকে ৯১ লাখ টাকা অনুদান দেওয়ার জন্য বাছাই করা হয়।

 

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সায়েদুল ইসলামের সঞ্চালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত সচিব ফরিদা পারভীন, অতিরিক্ত সচিব ড. মহিউদ্দিন আহমেদ, মহিলা বিষয়ক অধিদফতরের মহাপরিচালক রাম চন্দ্র দাস, বাংলাদেশ শিশু একাডেমির মহাপরিচালক জ্যোতি লাল কুরী, ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য নাসিমা আক্তার জলি, বেগম সেলিনা খালেক, আব্দুল মতিন ভূইয়াসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয় এবং বিভাগের প্রতিনিধিরা।